1. admin@dailylikonisongbad.com : admin :
  2. mdsohaghasan333@gmail.com : Sohag RAHMAN : Sohag RAHMAN
সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ০৭:৫২ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
নীলফামারীতে ২০ পিস ইয়াবা সহ আটক ১ যশোরে ট্রেন‌ আটকে আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভ যশোরের সাধারণ শিক্ষার্থীর বিক্ষোভ মিছিল ও অবরোধ কর্মসূচি। যশোর সদর হাসপাতালে জরুরি বিভাগের স্টোরে চুরির ঘটনায় স্বাস্থ্য বিভাগের তোলপাড় কোটা বিরোধীদের উপর হামলা ও নৃশংস হত্যার প্রতিবাদে ঝিনাইদহে ছাত্রদলের বিক্ষোভ মিছিল সম্পন্ন যশোরে ট্রেন‌ আটকে আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভ যশোরে পিস্তল, গুলি ও বার্মিজ চাকু সহ গ্রেফতার ০১। মোরেলগঞ্জে পরিবহনের ধাক্কায় ভ্যানগাড়িসহ খাল পড়ে কৃষকলীগ নেতা নিহত নবরূপে সুসজ্জিত হচ্ছে মাগুরার শালিখা ‘ইকো-পার্ক. নড়াইল সদর থানা কর্তৃক ১০০(একশত) পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ০১ জন গ্রেফতার

মহেশপুরে শত্রুতা করে রাতের আঁধারে পুড়িয়ে দিল এক্সিভেটর.

  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১ মে, ২০২৪
  • ১৮ বার পঠিত

নিজস্ব প্রতিবেদক বাবলু মিয়া.

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়ন এর পুরন্দপুর-কৃষ্ণ চন্দ্রপুরের মধ্যবর্তী চাঁনবিল মাঠে পুকুর সংস্করণের জন্য রেখে দেওয়া এক্সিভেটর গাড়িতে রাতের আঁধারে আগুন ধরিয়ে পুড়িয়েছে দুর্বৃত্তরা।সরজমিনে খোঁজ খবর নিয়ে জানাযায়,কোটচাঁদপুর উপজেলার মামুনশিয়া গ্রামের প্রবাসী জসিম উদ্দীন এর মাটি খনন করা এক্সিভেটর গাড়ি মাসিক চুক্তিতে ভাড়া নেন,মহেশপুর উপজেলার নস্তি গ্রামের সিরাজুল পিতা মৃত নৈমদ্দীন মন্ডল। জসিম প্রবাসে থাকায় তার পরিবার স্ট্যাম্পের মাধ্যমে মাসিক চুক্তিমতে সিরাজুল কে এক্সিভেটর ভাড়া দিয়ে দেয়। সিরাজুল এক্সিভেটর ঘন্টা চুক্তিতে ভাড়া দিয়ে থাকেন।(২৯শে- এপ্রিল)কৃষ্ণ চন্দ্র পুর গ্রামের সাদ্দাম পিতা শরিফ সিরাজুলের নিকট থেকে চাঁন বিলের মাঠে পুকুর সংস্করণ ও মাটি খনন করার জন্য ঘন্টা চুক্তিতে এক্সিভেটর ভাড়া নিয়ে পুকুরে নিয়ে রেখে দেয়। তারই পাশে পুরন্দপুর গ্রামের আঃ মালেক পিতা মৃত আবু সিদ্দিক ১০৪ নং চাঁনপুর মৌজার ২০১ নং খতিয়ানের ২৭৩২ নম্বর দাগের ৭৭ শতক ধানী জমিতে পূর্বে পুকুর কেটে মাছ চাষ করা অবস্থায় ভরাট হয়ে যাওয়ায় মহেশপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি কর্মকর্তা নিকট পুকুরটি সংস্করণের জন্য ২৪শে এপ্রিল আবেদন করেন।আবেদনের পরিপেক্ষিতে ফতেপুর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তার নিকট তদন্তের জন্য পাঠানো হয় ২৪ এপ্রিল।(২৫-এপ্রিল)তদন্ত করে আবার উপজেলা ভূমি অফিসে পাঠান ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা।সেই থেকে পুকুর সংস্করণ করে অতিরিক্ত মাটি রাতের আঁধারে ২০/২৫ টি মাটির ট্রাক্টরে করে পার্শ্ববর্তী সিরামিক মিল ও ইটের ভাটাই বিক্রি করা হচ্ছিল।এরপর(২৯শে- এপ্রিল)উপজেলা ভূমি সহকারী কর্মকর্তা ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তাকে পুকুর সংস্করণ ও মাটি স্থানান্তর না করতে নির্দেশ দেয়। তাৎক্ষণিক ২৯ এপ্রিল রাত ৮ টা ৫ মিনিটে ফতেপুর ইউপি সদস্য মোঃ মিজানুর রহমান’কে মোবাইলে জানান,মাটি স্থানান্তর না করতে।পরক্ষণেই পার্শ্ববর্তী ওয়ার্ড সদস্য রেজাউল ইসলাম মন্টু’কে ৮ টা ৯ মিনিটে মোবাইলে জানান,পুকুর সংস্করণ না করার জন্য।সংবাদ শুনে মিজানুর মেম্বারের অনুসারী’রা সাময়িক কাজ বন্ধ করলেও গভীর রাতে কাজ চালু করেন।রেজাউল ইসলাম মন্টু মেম্বারের অনুসারীরা এক্সিভেটর পুকুরে রেখে দিলেও মাটি খননের কাজ বন্ধ রাখেন।রাতে মিজানুর মেম্বারের মাটি খননের কাজ চলাকালীন সময়ে গভীর রাতে হঠাৎ পার্শ্ববর্তী রেখে দেওয়া এক্সিভেটর গাড়িতে আগুন জ্বলে উঠে। আগুন দেখে পুকুর মালিক আঃ মালেক তার ছেলে কে জানান,ফায়ার সার্ভিসের ফোন দেওয়ার জন্য। ৯৯৯ ফোন দিয়ে ফায়ার সার্ভিসের সেবা নেন।এদিকে মিজানুর মেম্বার কে ফোনে জানান এক্সিভেটর গাড়িতে আগুনের কথা।মিজানুর মেম্বার মন্টু মেম্বার কে ফোন দিয়ে জানান,এক্সিভেটর গাড়িতে কে বা কাহারা আগুন ধরিয়ে দিয়েছে আপনি মাঠে যান।মন্টু মেম্বার জানান,মিজানুর মেম্বার জানানোর পর সাথে সাথে মাঠে চলে যায়। গিয়ে দেখতে পায় সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে।রেজাউল ইসলাম মন্টু মেম্বারের অনুসারী আঃ রাজ্জাক পিতা মৃত বদরুদ্দিন মন্ডল গ্রাম কৃষ্ণ চন্দ্র পুর জানান মিজানুর মেম্বার মিজানুর মেম্বার এই গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়।আগুনের সুত্রপাত জানতে চাইলে রাজ্জাক জানান বিলের ডাঙায় আম্বিয়া নামে একজন মহিলা গভীর রাতে ধান সিদ্ধ করার জন্য ঘুম থেকে উঠে দেখে মাঠে গাড়িতে আগুন জ্বলছে।তখন সে জানালে মাঠে গিয়ে দেখতে পায় মিজানুর মেম্বারের লোকজন দুটি এক্সিভেটর গাড়ি নিয়ে মাঠ থেকে পালিয়ে গেছে।এবিষয়ে আম্বিয়া খাতুনের নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান আমি তো বাড়ি ছিলাম না।আমার ভাইয়ের বাড়ি ছিলাম। তবে আঃ রাজ্জাক সাংবাদিক এর কাছে যে তথ্য গুলো বলেছে ও দিয়েছে সঠিক নয়। এতেই বোঝা যায়।রেজাউল ইসলাম মন্টু মেম্বার জানান,মিজানুর মেম্বার এই আগুন লাগানোর সাথে জড়িত।মিজানুর মেম্বার জানান,আমি মাঠে ছিলাম না। মাঠ থেকে আমাকে জানানো হলে আমি মন্টু মেম্বার কে ফোন দিয়ে জানাই।তবে মন্টু মেম্বার এর সাথে আমার ভালো সম্পর্ক হয়তো বা কোন তৃতীয় পক্ষ ফায়দা নিতে এই কাজ করেছে। আমি তাদের শাস্তি চাই।সিরাজুল জানান,আমি ভাড়া দিয়েছি সাদ্দামের কাছে সে নিয়ে এসেছে এখন গাড়ি তো পুড়ে গেছে।আমি বাদী হয়ে মহেশপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।মহেশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মাহবুবুর রহমান জানান,এবিষয়ে কোনো অভিযোগ পায়নি।

Facebook Comments Box
এই ক্যাটাগরির আরও খবর
© স্বত্ব সংরক্ষিত © ২০২৩ দৈনিক লিখনী সংবাদ
Theme Customized By Shakil IT Park